HealthMen

আসছে ঈদের আমেজ, সাথে জমপেশ খাওয়া দাওয়া। এসময় পেটে গ্যাস হওয়ার দরুন পেটে ব্যথা খুবই কমন একটি সমস্যা। তবে গ্যাস হওয়া ছাড়াও পেটে ব্যথার কারণ হতে পারে হাজারটা। কিন্ত আমরা পেটে ব্যাথা হলেই কিছু চিন্তা না করেই গ্যাসের ওষুধ খেয়ে ফেলি, ব্যাথা কি কারনে হচ্ছে সেটা জানার চেষ্টা করি না এভাবে না জেনেই আমরা আস্তে আস্তে আমাদের শরীরের মারাত্মক হ্মতি করতে থাকি,সেটা নিয়ে অন্য কোনদিন কথা বলবো। এখানে আমরা গ্যাস্ট্রিকের কারণে পেটে ব্যথা নিয়ে কথা বলবো। এবং গ্যাস্ট্রিক ছাড়াও কি কি কারনে পেটে ব্যাথা হতে পারে সেটা জানবো-

পেটে ব্যথা, যা সাধারণ গ্যাস্ট্রিক বা পাকস্থলী থেকে উৎপন্ন হয় এবং কিছুহ্মনের মদ্ধেই সেগুলো নিজে থেকে অনেক সময় সেরে যায়। তবে ব্যথার বিভিন্ন ধরন ও এর স্থায়ীত্বের উপর নির্ভর করে এর গুরুত্বের সম্পর্কে ধারণা করা যায়।

আসুন যেনে নেওয়া যাক কি কি ধরনের পেটে ব্যাথা হতে পারে-

▪️ব্যথার সাথে পেট ফুলা বা ভার ভার মনে হওয়া, সাথে অতিরিক্ত বায়ু নির্গত হওয়া

▪️খাবার পর পেট ভারি মনে হওয়া, বুক জ্বালা করা, অস্বস্তিবোধ করা

▪️ব্যথা ও পায়খানা না হওয়া

▪️ব্যথার সাথে পাতলা পায়খানা, বমি হওয়া, অস্বস্তি বোধ করা

▪️ গ্যাসের ব্যথার সাথে বুকে ব্যথা হওয়া বা হার্ট বার্ন ইত্যাদি।

এ ধরনের যেকোন লক্ষ্যণ দেখা দিলে অপেক্ষা না করে দ্রুত একজন ডাক্তারের পরামর্শ নিতে হবে। লক্ষ্যণ প্রকাশ এর কারণ কি তা ডাক্তার আপনার থেকে বিস্তারিত বর্ণনা শুনে বুঝতে পারবেন এবং প্রয়োজনীয় চিকিৎসা দিবেন।

ঈদের ছুটিতে পেটে ব্যাথার মত অসংখ্য জরুরি স্বাস্থ্যগত সমস্যায় ঘরে বসেই ডাক্তার দেখাতে পারছেন হেলথমেন এ, ডাক্তার দেখাতে মেসেজ করুনঃ m.me/healthmen.services অথবা কল করুনঃ 01311040092 নাম্বারে।

কিন্ত সব ব্যাথা আবার গ্যাসের সমস্যার জন্য হয় না এহ্মেত্রে অতিরিক্ত সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে।কিন্ত কিভাবে বা কখন বুঝবেন আপনার সতর্ক হওয়া প্রয়োজন আসুন সে বিষয়ে জেনে নেই-

⚠️ সতর্ক হোনঃ

❗যদি ব্যথাটি খুব দ্রুতই বেড়ে যেতে থাকে।

❗যদি এই ব্যথা বা পেট ভাড়ি ভাব বার বার ফেরত আসতে থাকে।

❗পাকস্থলি ব্যথার সাথে যদি আপনার খাবার গিলতে কষ্ট হয়।

❗যদি হঠাৎ আপনার ওজন কমতে থাকে।

❗যদি প্রশ্রাবের পরিমান অতিরিক্ত বেড়ে বা কমে যায়।

❗হঠাৎ প্রশ্রাবে ব্যথা হলে।

❗যদি ডায়রিয়া কিছুদিন পরও না সারে।

এই সমস্যাগুলো আভাস দিচ্ছে খারাপ কিছুর। এসব ব্যথার দীর্ঘসূত্রিতা আভাস হতে পারে আলসার, একালাসিয়া কার্ডিয়া, যার্ড (GERD), অন্ননালীর ক্যন্সার, পাকস্থলী ক্যান্সার ইত্যাদির। আবার, অনেক সময় হৃদরোগ এর বুকে ব্যাথাকে হার্ট বার্ন মনে করে অবহেলা করা হয়, যা খুবই বিপদজনক। তাই খুব কমন এই গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা সম্পর্কে আপনাকে সর্তক থাকতে হবে। সহজ ভাষায় মনে রাখবেন, যেকোন ব্যথাই আপনার দেহের থেকে একটি সংকেত যে, কোন কিছু ঠিক নেই! তাই অবহেলা নয়। সতর্ক থাকুন। এবং সমস্যা দেখা দিলে অতিদ্রুত ডাক্তারের সরনাপন্ন হয়ে চিকিৎসা সেবা গ্রহন করুন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
X